সুলভ মূল্যে ৫ টি সেরা লিনাক্স কম্পিউটার

নতুন কম্পিউটার কিনতে চাচ্ছেন কিন্তু বাজেটের মধ্যে হচ্ছে না? নিজে নিজে কম্পিউটার তৈরি করে ব্যবহার করতে চাইলে খরচ কম হলেও ঝামেলা কিন্তু একটু বেশিই হবে।

আপনার এই সমস্যার সমাধান হচ্ছে, লিনাক্স কম্পিউটার। যদি আপনার লিনাক্স সম্পর্কে অভিজ্ঞতা নাও থাকে, তারপরেও লিনাক্স কম্পিউটার কিনতে পারেন। ঝামেলাবিহীন ও কম খরচে লিনাক্স কম্পিউটারগুলোতে, লিনাক্সের যেকোনো অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করতে পারবেন।

চলুন দেখে আসি, ৪০ হাজার টাকার মধ্যে  সেরা ৫ টি লিনাক্স কম্পিউটারের খবর।

কম্পুল্যাব মিন্টবক্স (Compulab MintBox Mini 2 Pro – MBM2 Pro)

কোয়াড কোর ইন্টেল সেলেরন জে থ্রি ফোর ফাইভ ফাইভ প্রসেসর এর এই কম্পিউটারে পূর্বেই লিনাক্স মিন্ট ১৯ অপারেটিং সিস্টেম ইন্সটল করে দেয়া হয়। এই কম্পিউটারে ৮ জিবি র‍্যাম ও ১২০ জিবি এসএসডির সাথে থাকে ৮০২.১১ এসি ওয়াইফাই এবং ৪.০ ভার্সনের ব্লুটুথ ড্রাইভার। ইউএসবি ৩.০ ও ইউএসবি ২.০ এর পোর্ট থাকে দুটো করে ও সাথে থাকে মাইক্রো এসডি কার্ড স্লট।

এই কম্পিউটারের সাথে পাবেন স্ট্যান্ডার্ড এইচডিএমআই, মিনি ডিসপ্লে পোর্ট ও ডুয়াল ইথারনেট পোর্ট। কেনার সময় এই কম্পিউটারের সাথে দেয়া হবে একজোড়া ওয়াইফাই অ্যান্টিনা। প্রথমদিকে এই কম্পিউটারের আকারআকৃতির কারণে একটু অন্যরকম লাগলেও, কিছুদিনের মধ্যেই এর প্রেমে পড়ে যাবেন আপনি। কম্পুল্যাবের ওয়েবসাইট থেকে এই কম্পিউটারটি ক্রয় করতে পারবেন মাত্র ৩০ হাজার টাকায়।

জেড অ্যা রিজন লিম্বো (ZaReason Limbo 6330a)

এএমডি রাইজেন থ্রি ওয়ান টি জিরো জিরো কোয়াড কোর প্রসেসরের এই কম্পিউটারে পূর্বেই লিনাক্স উবুন্টু ১৮.০৪ অপারেটিং সিস্টেম ইন্সটল করে দেয়া হয়। এই কম্পিউটারে ৪ জিবি ডিডিআর ফোর র‍্যাম ও ১ টিবি হার্ড ড্রাইভের সাথে থাকে ৮০২.১১ এসি ওয়াইফাই এবং ৪.০ ভার্সনের ব্লুটুথ ড্রাইভার। ৭.১ ডলবি সারাউন্ড সাউন্ড সিস্টেমের সাথে থাকে ইন্টেল এইচডি অডিও হ্যান্ডেলার।

দুটো অপটিক্যাল ড্রাইভের সাথে আছে এনভিডিআ জিটি ২১০ গ্রাফিক্স কার্ড। ইউএসবি ৩.০ এর পোর্ট আছে দুটো, ৪ টি ইউএসবি ২.০ এর পোর্টের সাথে আছে মাইক্রো এসডি কার্ড স্লট এবং একটি পিএস টুয়ের পোর্ট।  গ্রাফিক্যাল কাজের জন্যে তৈরি এই কম্পিউটার আপনার মন জয় করে নেবে ব্যবহার করার কিছুক্ষণের মধ্যেই। এই কম্পিউটারটি কিনতে পারবেন মাত্র ৪০ হাজার টাকায়।

এন্ডলেস ডেস্কটপ লিনাক্স (Endless Desktop Linux Mini PC)

যারা কম্পিউটার ক্রয় করতে গেলে অপারেটিং সিস্টেমের দিকে বেশি মনোযোগ দিয়ে থাকেন, তাদের জন্যে এন্ডলেস ওএস নিয়ে এসেছে সবচেয়ে সহজে ব্যবহারযোগ্য এবং চমৎকার ইন্টারফেসে লিনাক্স অপারেটিং সিস্টেমের কম্পিউটার। ডুয়াল কোর ইন্টেল সেলেরন এন টু এইট জিরো সেভেন প্রসেসরের এই কম্পিউটারের দাম মাত্র ২০ হাজার টাকা।

২ জিবি র‍্যাম এবং ৫০০ জিবি হার্ড ড্রাইভের সাথে আছে  ৮০২.১১ বিজিএন ওয়াইফাই এবং ৪.০ ভার্সনের ব্লুটুথ ড্রাইভার। ইউএসবি ৩.০ এর পোর্ট থাকে দুটো, ইউএসবি ২.০ এর পোর্ট থাকে ১ টি ও সাথে থাকে মাইক্রো এসডি কার্ড স্লট এবং ৩.৫ মিমি স্টেরিও বিল্টইন মাইক পোর্ট থাকে একটি।

তবে এর সাথে কোনো ধরনের ডিসপ্লে মনিটর, মাউস কিংবা কিবোর্ড থাকে না। যদি আপনার বাজেট খুবই কম, কিন্তু কম্পিউটারের সৌন্দর্যই আপনার কাছে মুখ্য ব্যাপার হয়ে থাকে, তাহলে ক্রয় করতে পারেন এন্ডলেস কম্পিউটারটি।

এন্ট্রোওয়ার অরা (Entroware Aura)

কোর আই থ্রি প্রসেসরের এই কম্পিউটারের দাম মাত্র ৪০ হাজার টাকা।  ৮ জিবি ডিডিআর ফোর র‍্যাম এবং ১২০ জিবি এসএসডির সাথে থাকে ইন্টেল এসি ওয়াইফাই এবং ৪.০ ভার্সনের ব্লুটুথ ড্রাইভার। ইউএসবি ৩.০ এর পোর্ট থাকে চারটি, ইউএসবি ২.০ এর পোর্ট থাকে ১ টি ও সাথে থাকে মাইক্রো এসডি কার্ড স্লট এবং টাইপ সি ডিসপ্লে পোর্ট থাকে একটি।

এই কম্পিউটারের চার ধরনের ভার্সন থাকে যেগুলো আপনি চাইলেই পরে আপগ্রেড করতে পারবেন। ৪০ হাজার টাকার মধ্যে দ্রুতগতি পেতে চাইলে  নিয়ে নিতে পারেন এই কম্পিউটারটি। চাইলে এর সাথে অতিরিক্ত অপারেটিং সিস্টেম ড্রাইভ, লজিটেকের কীবোর্ড ও মাউস, ইউএসবি টু ডিভিডি ড্রাইভার এবং ১ টিবি থেকে শুরু করে ২ টিবি পর্যন্ত এক্সটার্নাল হার্ড ড্রাইভ কিনে যুক্ত করতে পারবেন।

পাইন ৬৪ পাইনবুক (Pine 64 Pinebook)

লিনাক্স কম্পিউটারগুলোর মধ্যে সবচেয়ে কম দাম হচ্ছে এই কম্পিউটারটির। মাত্র ৯ হাজার টাকায় অনেক হালকা ও সাদাসিধে ডিজাইনের এই কম্পিউটারটি এআরএম স্ট্রাকচারে তৈরি। কোয়াড কোর এআরএম কর্টেক্স এর ৬৪ বিটের প্রসেসরের এই কম্পিউটারটি ইন্টেল ও এএমডি থেকে সম্পূর্ণ আলাদা।

২ জিবি র‍্যাম এবং ১৬ জিবি ইএমএমসি ড্রাইভের সাথে থাকে ৮০২.১১ বিজিএন ওয়াইফাই এবং ৪.০ ভার্সনের ব্লুটুথ ড্রাইভার। ইউএসবি ৩.০ ও ইউএসবি ২.০ এর পোর্ট থাকে ১ টি করে ও সাথে থাকে মাইক্রো এসডি কার্ড স্লট এবং ০.৩ মেগাপিক্সেল বিল্টইন ক্যামেরা। ১০ হাজার মেগা হার্টজ এর ব্যাটারি ব্যাকআপ থাকায় কম্পিউটারটি অফিশিয়াল কাজের জন্যে অনেক বেশি ব্যবহারযোগ্য। সুতরাং, যদি অফিসের কাজের জন্যে কম বাজেটে কম্পিউটার খুঁজে থাকেন, তাহলে এই পাইনবুক যথেষ্ট।

কেন লিনাক্স কম্পিউটার ব্যবহার করবেন?

লিনাক্স কম্পিউটারের আকারআকৃতি অনেক ছোটোখাট হয় ও দামও অনেক কম হয়ে থাকে। অনেকেই ভেবে থাকেন যে, উইন্ডোজ কম্পিউটার এর মতোই লিনাক্স কম্পিউটারগুলোও অনেক ধীরগতির হয়ে থাকে। কিন্তু এই ধারণা সম্পূর্ণ ভুল। লিনাক্স কম্পিউটারগুলোর দাম কম হলেও, অন্যান্য অপারেটিং সিস্টেমের কম্পিউটারের থেকে অনেক বেশি দ্রুতগতির হয়ে থাকে।

লিনাক্স মূলত ইউনিক্স বেইজড সিস্টেম। আসল ইউনিক্স নয়, তবে ইউনিক্সের মত। সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্টের কাজ করতে চাইলে ইউনিক্স বেইজড সিস্টেম আপনাকে অবশ্যই কিছু সুবিধা দেবে, যেগুলো উইন্ডোজে পেতে আপনাকে যথেষ্ট কাঠখড় পোড়াতে হবে। ৪০ হাজার টাকার মধ্যে লিনাক্স কম্পিউটারগুলোতে আপনি হাই কোয়ালিটির গ্রাফিক্স কিংবা গেইমিং করতে না পারলেও, মিডিয়াম কোয়ালিটির অফিশিয়াল কাজগুলো বেশ ভালোভাবেই করতে পারবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top