ওয়াকম্যানের ৪০ বর্ষপূর্তি উদযাপন করছে সনি

৪০ বছর আগে এই গ্রীষ্মকালেই ওয়াকম্যান টিপিএস-এল২ উন্মোচন করেছিলো সনি। যুগান্তকারী এই ডিভাইসটি মানুষের সঙ্গীত শোনার ধরনই পাল্টে দিয়েছে। জাপানের টোকিওতে ওয়াকম্যানের ৪০ বর্ষপূর্তি উদযাপন করছে নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি।

সনির সবচেয়ে আইকনিক ব্র্যান্ড বলা হয় ওয়্যাকম্যানকে। হাজারো ডিভাইসে রয়েছে এই ব্র্যান্ডিং। এখনও এই ব্র্যান্ডের পণ্য বাজারে আনছে সনি।
প্রযুক্তি সাইট ভার্জের প্রতিবেদনে বলা হয়, ওয়াকম্যানের সাফল্য উদযাপনে টোকিওতে প্রদর্শনীর আয়োজন করেছে সনি। এর নাম দেওয়া হয়েছে ‘ওয়াকম্যান ইন দ্য পার্ক।’ সনির পুরানো আইকনিক ভবন গিনজা সনি পার্কে নতুন একট পাবলিক স্পেসে চালু করা হয়েছে এই প্রদর্শনী। সামনের বছর এখানে পুরানো ভবনটি ভেঙ্গে প্রতিষ্ঠানের নতুন ভবন করা হবে।
প্রদর্শনীতে সনির পুরানো অনেক পণ্য রাখা হয়েছে। তবে সেখানে ওয়াকম্যান ইন দ্য পার্ক বিভাগটি কিছুটা আলাদা। এখানে পণ্যগুলো বাস্তবে ব্যবহারের সুযোগ দেওয়া হয়েছে এবং এগুলো আসলে কেমন অনুভূতি দেয় তার দিকে নজর দেওয়া হয়েছে।

কম দামী প্লাস্টিকের হেডফোনে ক্যাসেটের মাধ্যমে মিউজিক শুনতে পারবেন গ্রাহক। পাশাপাশি ওই সময়ে যারা ওয়াকম্যান ব্যবহার করেছেন তাদের উদ্ধৃতি দেওয়া দেওয়া হয়েছে। এক মুহুর্তের জন্য গ্রাহক হয়তো অনুভব করবেন তিনি আশির দশকে ফিরে গেছেন।

স্কেট পার্কের আদলে সাজানো হয়েছে প্রদর্শনীটি। র‍্যাম্পে বসে অরিজিনাল টিপিএস-এল২ ওয়াকম্যানে শুরুর দিকের হিপ-হপ গান শুনতে পারবেন গ্রাহক।
বর্তমানে যেখানে হেডফোন জ্যাক গায়েব হওয়ার দিকে সেখানে টিপিএস-এল২ এর ডুয়াল আউটপুট ব্যবস্থা অনেকের নজর কেড়েছে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।
“ওয়াকম্যান ওয়ালে” রাখা হয়েছে কল্পনা করা যায় এমন প্রায় সব প্লেয়ার।

2 thoughts on “ওয়াকম্যানের ৪০ বর্ষপূর্তি উদযাপন করছে সনি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top